No icon

ইসলামের বিরুদ্ধে পোস্ট দেওয়ায় মাসে ৭ লাখ রূপি উপার্জনকারী অধ্যাপক নীরজ বেদীকে বরখাস্ত করেছে সৌদী আরব

সংযুক্ত আরব আমিরাত সোশ্যাল মিডিয়ায় মুসলিম বিদ্বেষ ও ইসলামফোবিয়ার পোস্ট দেওয়ার পরে, সউদী আরবের একটি বিশ্ববিদ্যালয় এখন টুইটারে ভারতীয় অধ্যাপক নীরজ বেদিকে তার ঘৃণ্য পোস্টের জন্য বরখাস্ত করেছে।

গতকাল সোমবার প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, সউদী আরবের জাজান বিশ্ববিদ্যালয় নিজেই তার টুইটারে লিখেছে যে, বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু সদস্য বলেছিলেন যে, তারা আপত্তিজনক পোস্ট এবং ইসলামফোবিক টুইট পোস্ট করছেন। তাই এ বিশ্ববিদ্যালয়ে তাদের নিবন্ধন বাতিল হয়ে গেছে। জাজান বিশ্ববিদ্যালয় নিশ্চিত করেছে যে, এই ব্যক্তিরা আমাদের নীতিকে প্রভাবিত করে এবং ভাল নেতৃত্বের গুণকে প্রশ্নবিদ্ধ করে এমন এবং চরমপন্থী দৃষ্টিভঙ্গির ইঙ্গিত দেয়।

উল্লেখ্য যে, অধ্যাপক নীরজ বেদী সউদী আরবের জাজান বিশ্ববিদ্যালয়ের কমিউনিটি মেডিসিনের অধ্যাপক ছিলেন। তার বেতন ছিল ৩৫ হাজার রিয়াল অর্থাৎ প্রতি মাসে ভারতীয় সাত লাখ টাকা তিনি আয় করতেন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। সউদী আরবে অবস্থানকালে তাকে ইসলাম ও মুসলমানদের বিরুদ্ধে বিষ ছড়ানোর জন্য বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

আজকাল বহু ভারতীয় হিন্দুদের বরখাস্ত করা হয়েছে এবং অনেককে মুসলিম বিরোধী মন্তব্য করার জন্য সউদী আরব, কুয়েত এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের অনেক জায়গায় কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে বলে প্রতিবেনে উল্লেখ করা হয়। 

Comment As:

Comment (0)