No icon

মিথ্যে বলায় সাংবাদিকের জেরার মুখে ট্রাম্পের প্রস্থান

যুদ্ধফেরত এবং অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্যদের কল্যাণে তাদের স্বাস্থ্য সেবায় ভেটার্ন চয়েস পোগ্রাম বর্তমান সরকার পাস করিয়েছেন বলে দাবি করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বারবার তিনি এমন দাবি করেছেন। যদিও ২০১৪ সালে তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বিলটিতে স্বাক্ষরের মাধ্যমে এটিকে আইনে পরিণত করেন।

শনিবার যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সির বেডমিনস্টার গলফ ক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বারবার এই দাবি করেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। এ সময় দাবিটিকে ‘মিথ্যা’ আখ্যা দিয়ে তাকে চ্যালেঞ্জ করে বসেন সেখানে উপস্থিত এক সাংবাদিক। তখন কোনো জবাব না দিয়ে দ্রুত মাঝপথে সংবাদ সম্মেলন শেষ করে চলে যান মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

সংবাদ সম্মেলনে ডোনাল্ড ট্রাম্প দাবি করেন, দশকের পর দশক ধরে অবসরপ্রাপ্ত সেনারা এ ধরনের একটি বিল পাসের দাবি জানিয়ে আসছিলেন। কিন্তু কোনো প্রেসিডেন্টই ক্ষমতায় থাকাকালীন বিলটি পাস করতে সক্ষম হননি। যা আমরা (ট্রাম্প প্রশাসন) করতে পেরেছি।

সিএনএনের খবরে বলা হয়, ২০১৪ সালে ভেটার্ন চয়েস পোগ্রাম বিলটিতে স্বাক্ষরের মাধ্যমে এটিকে আইনে পরিণত করেন তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। এর আওতায় সরকারি চিকিৎসা ব্যবস্থার বাইরেও পছন্দ বা প্রয়োজন অনুসারে বেসরকারি চিকিৎসা সেবা পেতে সরকারের অর্থ সহায়তা পাবেন যুক্তরাষ্ট্রের অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্যরা।

সে সময় যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান দুই দল ডেমোক্রেট এবং রিপাবলিকান উভয় পক্ষই বিলটিতে দৃঢ় সমর্থন দেয়। আর বিলটির উদ্যোক্তা ছিলেন দুই সিনেটর ভারমন্টের বর্ষীয়ান বার্নি স্যান্ডার্স এবং অ্যারিজোনার প্রয়াত জন ম্যাককেইন। কিন্তু বিলটি নিয়ে তখন তীব্র বিরোধিতা করেছিলেন বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

২০১৮ সালে ট্রাম্প এমন একটি বিলের নির্বাহী আদেশে স্বাক্ষর করেন, যা আগেই অনুমোদিত ছিল। ওই আদেশটি ‘ভিএ মিশন অ্যাক্ট’ শীর্ষক আইনের নতুন সংযোজন। এর আওতায় অবসরপ্রাপ্ত সেনাদের জন্য স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রমের সংস্কার বৃদ্ধি করা হয়েছে।

সেটিকেই কাজে লাগিয়ে বিভিন্ন স্থানে ট্রাম্প ১৫০ বারের বেশি দাবি করে বলেন, তিনিই ভেটার্ন চয়েজ বিল পাস করেছেন। আর অন্যরা ৫০ বছর ধরে করতে ব্যর্থ হয়েছেন। শুধু তিনিই সফলতা অর্জন করেছেন।

সেই দাবির প্রেক্ষিতে সংবাদ সম্মেলনে সিবিএস নিউজের সাংবাদিক পলা রেইড ট্রাম্পকে জিজ্ঞেস করেন, ভেটার্নস চয়েজ বিল পাস করেছেন বলে আপনি কেন বারবার দাবি করছেন? এ সময় ট্রাম্প তাকে এড়িয়ে যান এবং অন্য সাংবাদিককে প্রশ্ন করতে বলেন। তবুও ট্রাম্পকে পাত্তা না দিয়ে রেইড আবারও বলেন, আপনি দাবি করেছেন, বিলটি আপনি পাস করেছেন। কিন্তু তা সত্য নয়। কারণ এটি ২০১৪ সালেই আইনে রূপান্তরিত হয়।

এ কথা বলামাত্রই ট্রাম্প সবাইকে ধন্যবাদ দিয়ে মঞ্চ থেকে নেমে যান।

Comment As:

Comment (0)