No icon

বহু দেশে করোনার টিকা স্থগিত; বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সতর্কবার্তা

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনাভাইরাস মোকাবেলা স্থগিত করায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বা ডাব্লিউএইচও সতর্কবার্তা উচ্চারণ করেছে। পাশাপাশি বিশ্ব সংস্থাটি স্থগিত করা দেশগুলোর কাছে আবেদন জানিয়ে বলেছে, টিকাদান কর্মসূচি স্থগিত করলে করোনাভাইরাস পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে। 

এশিয়া, আফ্রিকা ও ইউরোপের অন্তত ১৮টি দেশ করোনাভাইরাস মোকাবেলায় অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা স্থগিত করেছে। এই টিকা গ্রহণের পর অনেকের দেহে রক্ত জমাট বেধে যাচ্ছে বলে খবর বেরিয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা গতকাল (সোমবার) টিকা দেয়া স্থগিত না রাখতে এসব দেশের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। ডাব্লিউএইচও’র প্রধান বিজ্ঞানী সৌম্য স্বামীনাথান ভার্চুয়াল মিডিয়া ব্রিফিংয়ে গতকাল (সোমবার) বলেন,  টিকা দেয়ার সঙ্গে মৃত্যুর ঘটনার কোনো সম্পৃক্ততা নেই।

সৌম্য স্বামীনাথান

তিনি বলেন, “আমরা মানুষের মধ্যে ভীতি ছড়াতে চাই না। কথিত রক্তজমাট বাধার সঙ্গে এ পর্যন্ত টিকাদানের কোনো সম্পর্ক পাওয়া যায় নি।”

২০১৯ সালের শেষ দিকে চীনে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর প্রথম যে টিকা উদ্ভাবন করা হয়েছে অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা তার অন্যতম। এটি তুলনামূলক সস্তা টিকা হিসেবেও ব্যবহৃত হচ্ছে। কিন্তু ইউরোপের বহু দেশ রক্তজমাট বাধার অভিযোগে এ টিকার ব্যবহার স্থগিত করেছে।

গতকাল জার্মানি, ফ্রান্স ও ইতালি এই কাতারে যোগ দিয়েছে। দেশ তিনটি বলেছে, তারা অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা স্থগিত করবে। ইউরোপের এই তিন গুরুত্বপূর্ণ দেশের এমন সিদ্ধান্তে করোনাভাইরাসের টিকাদান কর্মসূচি মারাত্মকভাবে বাধাগ্রস্ত হবে বলে আশংকা করা হচ্ছে

Comment As:

Comment (0)