No icon

ইরানবিরোধী নতুন হটকারিতার অজুহাত খুঁজতে জাহাজ ছিনতাইয়ের অভিযোগ

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সামরিক বাহিনী ওমান সাগরের সাম্প্রতিক ঘটনাবলী এবং জাহাজ ছিনতাইয়ের পশ্চিমা অভিযোগের নিন্দা করেছে। ইরানের সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আবুলফাজল শেকারচি মঙ্গলবার বলেন, ইরানবিরোধী নতুন হটকারিতার অজুহাত খুঁজতেই জাহাজ ছিনতাইয়ের অভিযোগ তোলা হয়েছে।

তিনি বলেছেন, পশ্চিমা, সৌদি ও ইহুদিবাদী গণমাধ্যমগুলো সমুদ্র নিরাপত্তা এবং আঞ্চলিক পানিসীমা থেকে জাহাজ ছিনতাইয়ের  বিষয়ে যে সাংঘর্ষিক খবর দিয়েছে তা মূলত এক ধরনের মনস্তাত্ত্বিক যুদ্ধ। নতুন কোনো হটকারিতার জন্য তারা এই খবর প্রচার করেছে। ইরানি এ সেনা কর্মকর্তা আরো বলেন, বাণিজ্যিক জাহাজ চলাচলের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ও যেকোনো সন্দেহজনক তৎপরতার বিরুদ্ধে ইরানের সামরিক বাহিনীর হাতে পূর্ণ গোয়েন্দা তথ্য থাকে এবং তারা সবসময় সাহায্যের জন্য প্রস্তুত রয়েছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স দাবি করেছে, “মনে করা হচ্ছে আরব আমিরাতের উপকূল থেকে ইরান সমর্থিত বাহিনী একটি তেলবাহী ট্যাংকার আটক করেছে।”

সমুদ্র নিরাপত্তা বিষয়ক বিভিন্ন সূত্রের বরাত দিয়ে রয়টার্সের ওই রিপোর্টে বলা হয়েছে, আলকাতরা অথবা পিচ বহনকারী আসফ্যাল্ট প্রিন্সেস নামের ওই জাহাজটি আরব আমিরাতের উপকূল থেকে ছিনতাই হয়।

এদিকে, লন্ডন থেকে প্রকাশিত ‘দ্যা টাইমস’ পত্রিকা কয়েকটি সূত্রের বরাত দিয়ে বলেছে, ইরানের সেনা অথবা তাদের সমর্থিত কোন গোষ্ঠী জাহাজটি ছিনতাই করেছে কিনা সে বিষয়ে তারা পরীক্ষা নিরীক্ষা করে দেখছে।

এদিকে, ইউনাইটেড কিংডম মেরিটাইম অপারেশন্স নামের একটি সংস্থা সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফুজাইরা বন্দরের কাছ থেকে একটি জাহাজ ছিনতাইয়ের সম্ভাবনার কথা বলেছে। তবে আজ সকালের দিকে তারা বলেছে, জাহাজ ছিনতাই সন্দেহের অবসান ঘটেছে এবং জাহাজটি নিরাপদে রয়েছে। জাহাজটিতে যারা উঠেছিল তারা নেমে গেছে। তবে সংস্থাটি ওই জাহাজের নাম পরিচয় উল্লেখ করে নি

Comment As:

Comment (0)