No icon

শেখ হাসিনার রাষ্ট্রে ১১তলা থেকে লাফ দিয়ে আত্মহত্যা করে স্বর্গে গেলেন নিঃস্ব এক বিনিয়োগকারী !

একদিকে রাষ্ট্রের সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকা লুট করে চম্পট প্রশান্ত কুমার হালদার। অন্যদিকে আজকে হাইরাইজ বিল্ডিং থেকে লাফ দিয়ে আত্মহত্যা করলেন শেয়ার বাজারে সর্বস্ব হারানো নিঃস্ব এক বিনিয়োগকারী। এদিকে একটু আগে সংসদে মন্ত্রী মহোদয় জানালেন, সারাদেশে ভিক্ষুকের সংখ্যা নাকি আড়াই লাখ। তাহলে, শুধুমাত্র একজন প্রশান্ত কুমার হালদারের লুটের টাকা দিয়েই তো সারাদেশের সব ভিক্ষুকদের একযোগে ধনী বানিয়ে দেয়া যায়। আর ওবায়দুল কাদেরের হাতঘড়ির টাকায় তো সারাদেশের সব ভিক্ষুকের একবেলার অন্নসংস্থান করা যায়। এই যে এতসব উন্নয়নের গপ্প। আসলে সব উন্নয়নই হয়েছে প্রশান্ত কুমার আর ওবায়দুল কাদেরদের! বাকীরা সবাই নিঃস্ব আর সর্বস্ব হারানো। ‘পদ্মাসেতুর একেকটা স্প্যান বসানোর খবরের শিরোনামের মতই’। উন্নয়নের ট্যাগ দেয়া অংশিদার মাত্র।

শেয়ারবাজারে দরপতনে লোকসানের খবরে রাজধানীর বনানীতে বিটিআই টাওয়ারের ১১তলা থেকে লাফ দিয়ে সানলাইফ ইন্স্যুরেন্সের আইটি বিভাগের প্রধান হুমায়ুন কবির (৫২) আত্মহত্যা করেছেন।

সোমবার নিজ অফিসের ১১তলার জানালা দিয়ে লাফিয়ে পড়েন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

তবে কোম্পানিটির দায়িত্বশীলরা বলছেন, হুমায়ুন কবির কীভাবে ১১তলা থেকে নিচে পড়েছেন তা তারা জানেন না। বিভিন্ন ফেসবুক গ্রুপে তার মৃত্যুর বিষয়টি ভাইরাল হয়েছে।

এ বিষয়ে সানলাইফ ইন্স্যুরেন্সের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) একেএম শরিফুল ইসলাম বলেন, হুমায়ুন কবির প্রতিষ্ঠানটির আইটি বিভাগের প্রধান ছিলেন। ঘটনার সময় তিনি রুমে একা ছিলেন। সঙ্গে সঙ্গে অপর কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে যান।

ফেইসবুকে শেয়ারবাজারের বিনিয়োগকারীদের গ্রুপে একজন বিনিয়োগকারী বনানীর বিটিআই টাওয়ার থেকে লাফিয়ে আত্মহত্যার খবর প্রকাশের বিষয়ে জানতে চাইলে একেএম শরিফুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি তিনি শুনেছেন।

সংবাদ পেয়ে বনানী থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তার লাশ উদ্ধার করে।

বনানী থানার ওসি নুরে আজম মিয়া বলেন, বিটিআই টাওয়ার ১১তলায় সানলাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির আইটি প্রধান হিসেবে কর্মরত ছিল হুমায়ুন। অফিসে থাকা অবস্থায় হঠাৎ অফিসের জানালা দিয়ে নিচে লাফিয়ে পড়েন তিনি। লাফ দেওয়ার নেপথ্যে আমরা শেয়ারবাজারে লোকসানের কথা শুনেছি। তবে বিষয়টি নিশ্চিত নয়। ধারণা করা হচ্ছে এটি আত্মহত্যা। এ বিষয়ে জানার জন্য চেষ্টা করা হচ্ছে।

মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে জানিয়ে ওসি বলেন, ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে মৃত্যু সঠিক কারণ জানা যাবে।

Comment As:

Comment (0)