No icon

ডা. জাফরুল্লাহ: ডাকাতি করছে ওষুধ কোম্পানিগুলো

করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় ব্যবহ্নত ওষুধের দাম ধরা-ছোঁয়ার বাইরে উল্লেখ করে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, করোনাকালীন এই সময়ে সুযোগ বুঝে ওষুধ কোম্পানিগুলো ডাকাতি করছে। আজ মঙ্গলবার রাতে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

dr zafrullah chowdhuryগণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, আমি এখন ভালো বোধ করছি। তবে দেশের সামনে খুবই খারাপ সময় আসছে। তাই সবাইকে সতর্ক করে বলছি, সামনে অসংখ্য মানুষ ভাইরাসটিতে সংক্রমিত হবে। তখন অধিক দামের কারণে সবাই ওষুধ কিনতে পারবে না। আইসিইউর সংকট দেখা দেবে। আর এই সুযোগে ডাকাতি করবে ওষুধ কোম্পানিগুলো।

তাই এখনই সরকারকে ওষুধের দাম নিয়ন্ত্রণ করার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ওষুধের দাম নিয়ন্ত্রণ করার এখনই উপযুক্ত সময়। পরে বিপদের সময় সেই সুযোগ পাওয়া যাবে না। তাছাড়া লকডাউন তুলে নেয়ার কারণে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা অনেক বেড়ে যাবে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি।

এদিকে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে বলা হয়, করোনায় আক্রান্ত ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর শারীরিক অবস্থার আশানুরূপ উন্নতি হয়েছে। তিনি বর্তমানে গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালের কেবিনে আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

ডা. জাফরুল্লাহর স্ত্রী মানবাধিকার কর্মী শিরীন হক ও ছেলে বারীশ হাসান চৌধুরীও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তারা নিজ বাসায় আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন এবং সুস্থ আছেন বলে জানানো হয়েছে।

Comment As:

Comment (0)