No icon

চুল কাটার সিরিয়াল নিয়ে বিরোধ, ব্যবসায়ীকে হত্যা করলো যুবলীগ নেতা

বগুড়ায় সেলুনে চুল কাটার সিরিয়াল নিয়ে বিরোধের জেরে সায়েদ আলী (৪০) নামে এক স’মিল ব্যবসায়ীকে হত্যা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

শুক্রবার (২৪ জানুয়ারি) দুপুরে সদরের নুনগোলা বাজারে এই ঘটনা ঘটে। পুলিশ হত্যায় জড়িত সন্দেহে নিশিন্দারা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি রুবেল হোসাইন (৩০) ও তার সহযোগী সীমান্তকে (২৫) আটক করেছে। সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) রেজাউল করিম রেজা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে ওসি-তদন্ত রেজা জানান, দুপুরে লেংরাবাজারের একটি সেলুনে চুল কাটা নিয়ে নিশিন্দারা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি এবং রুবেল হোসাইনের সঙ্গে ব্যবসায়ী সায়েদের বাকবিতন্ডা হয়। এর জেরে রুবেলের নেতৃত্বে বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে বারপুর উত্তরপাড়ার জনি, সীমান্ত, শান্তসহ কয়েকজন স’মিলে যায়। তাদের হামলায় সায়েদ গুরুত্বর আহত হন। পরে স্থানীয়রা সায়েদকে উদ্ধার করে বগুড়া টিএমএসএস মেডিক্যাল কলেজ ও রফাতউল্লাহ কমিউনিটি হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে বেলা ২টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

তবে স্থানীয়দের দাবি, যুবলীগ নেতা রুবেল ও তার লোকজন ওই এলাকায় চাঁদাবাজি করেন। নিহত সায়েদ আলীর ভাই জাফরুল এর প্রতিবাদ করলে একইদিন দু’পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি হয়। এর জেরেই এই হত্যা।

বগুড়া সদর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম দুলু বলেন, ‘রুবেল হোসাইন নিশিন্দারা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি। তার বিরদ্ধে হত্যার অভিযোগ প্রমাণ হলে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

নিশিন্দারা উপশহর পুলিশ ফাঁড়ির ইন্সপেক্টর আম্বার হোসেন বলেন, ‘কোনো চাঁদাবাজি নয়, সেলুনে সিরিয়াল দেওয়া নিয়ে বিরোধে এই হত্যাকান্ড সংঘটিত হয়েছে। হত্যায় জড়িত সন্দেহে যুবলীগ নেতা রুবেল এবং তার সহযোগী সীমান্তকে আটক করা হয়েছে। অন্যদের ধরতে অভিযান চলছে। তবে ২৪ জানুয়ারি বিকাল পর্যন্ত এ হত্যাকান্ডের ঘটনায় মামলা হয়নি।’

Comment As:

Comment (0)